অনুশীলনের জন্য শুক্রবার চট্টগ্রাম যাচ্ছে জাতীয় দল

0
33
-

Bangladesh8

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা : সংশয়ের কালো মেঘ কেটে গেছে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও খেলোয়াড়দের মধ্যে যে অর্থনৈতিক মত পার্থক্য ও দূরত্ব তৈরি হয়েছিল, তা দূর হয়েছে। দু’পক্ষের সমঝোতা চুক্তিও হয়ে গেছে। এখন কোন সমস্যা নেই। আর নতুন কোন সমস্যা না হলে বাংলাদেশ আর অস্ট্রেলিয়া সিরিজ হবে যথা সময়েই।

এদিকে সিরিজ হবে ধরে ও ভেবেই চলছে বাংলাদেশ দলের প্রস্তুতি। প্রাথমিকভাবে তিন সপ্তাহের ফিটনেস ক্যাম্প শেষে এ সপ্তাহের প্রথম থেকেই শুরু হয়েছে ক্রিকেট প্র্যাকটিস। প্রস্তুতি কার্যক্রমটাকে পরিশিলিত ও সুবিন্যস্ত করার উদ্যোগ আছে শুরু থেকেই।

যেহেতু দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের শেষটি চট্টগ্রামে, তাই প্রস্তুতি পর্বের একটা অংশ বন্দর নগরিতে করার সিদ্ধান্ত নেয়া আছে। সে আলোকেই পরের সপ্তাহে অনুশীলন হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।

প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘আগামীকাল (শুক্রবার) বিকেলে চট্টগ্রাম যাবে জাতীয় দলের বহর। সেখানে এক সপ্তাহ অবস্থান করবে। তারপর ১২ আগষ্ট আবার ঢাকায় ফিরে আসবে জাতীয় দল।’

আজ (৩ আগস্ট) শেরে বাংলার অনুশীলন শেষে পরের সপ্তাহের অনুশীলন সেশনটা হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। ৭ আগষ্ট সোমবার পর্যন্ত টানা তিনদিন সকাল-বিকেল দুই বেলা অনুশীলন। ৮ আগষ্ট শুধু জিম আর ফিজিক্যাল ট্রেনিং। ৯ থেকে ১১ আগষ্ট তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ। ঐ ওয়ার্ম আপ ম্যাচ শেষে ১২ আগষ্ট জাতীয় দল ফেরত আসবে ঢাকায়।

রাজধানী ফেরার পরদিন মানে ১৩ আগষ্ট বিশ্রাম। ১৪, ১৫ ও ১৬ আবার টানা অনুশীলন। এরপর একটি দু’দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ। সেটা হবে ১৭-১৮ আগষ্ট। ঐ ম্যাচ শেষেই প্রথম টেস্ট স্কোয়াড চূড়ান্ত হবে।

প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘সবকিছু ঠিক মত চললে আগামী ১৮ আগষ্ট হয়তো অস্ট্রেলিয়া ঢাকায় পা রাখবে। আমরা ১৭ ও ১৮ আগষ্ট দু’দিনের প্র্যাকটিস ম্যাচ শেষে ঐ দিন দল ঘোষণার চিন্তা ভাবনা করছি। যেহেতু ঘরের মাঠে খেলা, তাই আমরা ১৪ জনের দলই সাজাবো।’


-

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here