সুষ্ঠু নির্বাচনের আশ্বাস দিলেন প্রধানমন্ত্রী

0
27
-

pm-barnekatদেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া ব্লুম বার্নিকাট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। এ সময় মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে সহিংসতামুক্ত সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ পরিবেশে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন আশা করে। জবাবে প্রধানমন্ত্রী মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ পরিবেশে নির্বাচনের আশ্বাস দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত করে এসব কথা বলেন। সাক্ষাতের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বলেন, বৈঠকে বিভিন্ন বিষয়ে বিশেষ করে বাংলাদেশের জ্বালানিখাতে দুই দেশের সহযোগিতার বিষয় আলোচনায় গুরুত্ব পায়।

মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, জাতিসংঘের আসন্ন ৭২তম সাধারণ সভায় বাংলাদেশে অবস্থান নেয়া মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত হয়ে আসা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবর্তনের বিষয়টি গুরুত্বেও সঙ্গে উত্থাপন করা হবে এবং এ বিষয়ে শক্তিশালী ভূমিকা পালন করবে যুক্তরাষ্ট্র।

বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে তাঁর দেশের বিনিয়োগের আগ্রহ ব্যক্ত করে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে এলএনজি রফতানি করতে আগ্রহী।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার জ্বালানি খাত থেকে শুরু করে টিভি, মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন খাতকে বেসরকারি খাতে উন্মুক্ত করে দিয়েছে যাতে দেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়। আলোচনাকালে মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে সহিংসতামুক্ত সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ পরিবেশে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন আশা করে।

জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, আগামী সাধারণ নির্বাচন অবশ্যই সুষ্ঠু ও স্বচ্ছভাবে অনুষ্ঠিত হবে। কারণ তার সরকার সে লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে।

তিনি বলেন, অনেক নির্বাচনেই আমরা পরাজয়বরণ করেছি এমনকি খুব সামান্য ব্যবধানেও পরাজিত হয়েছি। কিন্তু কোন নির্বাচনেই প্রভাব খাটিয়ে বিজয়ী হবার চেষ্টা করি নাই।

শেখ হাসিনা বলেন, যে কোন ধরনের নির্বাচন পর্যবেক্ষক দলকে আগামী নির্বাচনকালে স্বাগত জানাতে তার দল প্রস্তুত রয়েছে।আগামী অক্টোবরে ঢাকা মিশন শেষ হচ্ছে প্রায় তিন বছর ধরে ঢাকায় থাকা জ্যেষ্ঠ কূটনীতিক মার্শা বার্নিকাটের। তবে সরকার প্রধানের সঙ্গে এটি তার বিদায়ী সাক্ষাৎ নয়। বরং দুই দেশের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জরুরি আলোচনা করতে বৈঠক করেন তিনি।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান।


-

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here