বিএসইসির নজরদারীতে বীমা খাতের চার কোম্পানি, অনিয়ম হলে ব্যবস্থা!

0
995
-

insurence lagoদেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সেচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নজরদারিতে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বীমা খাতের চার কোম্পানি। সম্প্রতি দৈনিক দেশ প্রতিক্ষণে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর কারসাজি ও ইনসাইডার ট্রেডিং অভিযোগ এমন সংবাদ প্রকাশের পরই নড়েচড়ে বসছে বিএসইসি।

এবার বীমা খাতের চার কোম্পানির শেয়ারকে ঘিরে সক্রিয় রয়েছে কারসাজিকারীরা। এর জের ধরে এ কোম্পানিগুলোর শেয়ারদর কোন কারণ ছাড়াই অস্বাভাবিকভাবে বাড়ছে। আর গুজব ছড়ানোর মাধ্যমে এ কোম্পানিগুলোর শেয়ারদর বাড়ানো হচ্ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

কোম্পানিগুলো হলো: হলো: ইউনাইটেড ইন্সুরেন্স, রুপালী লাইফ ইন্সুরেন্স, মেঘনা লাইফ ইন্সুরেন্স, প্রাইম লাইফ ইন্সুরেন্স। সাম্প্রতিক সময়ে এসব কোম্পানির শেয়ার দর অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণ খতিয়ে দেখবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এর আগে শেয়ার দরে অস্বাভাবিক উল্লম্ফনের পেছনে কারসাজি বা বিধি বহির্ভুতভাবে মূল্য সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশ হয়েছে কিনা জানতে চেয়ে কোম্পানিগুলোকে গত সপ্তাহে শোকজ করেছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। কিন্তু কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে দর বাড়ার পেছনে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষরা।

কোম্পানিগুলোর বিষয়ে বিএসইসি’র সার্ভিলেন্স বিভাগের এক উর্ধতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, যেহেতু কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে কোন মূল্য সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশ হয়নি তাই এখানে অন্য কোন পক্ষ থেকে কারসাজি হয়েছে কিনা আমরা খতিয়ে দেখবো। কারসাজির ঘটনা ঘটে থাকলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইউনাইটেড ইন্সুরেন্স: ইউনাইটেড ইন্সুরেন্সের শেয়ারদর নিয়ে কারসাজিতে মেতেছে একটি সিন্ডিকেট চক্র। এ কোম্পানির টানা বৃদ্ধি নিয়ে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বিনিয়োগকারীদের প্রশ্ন ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্সের নিয়ন্ত্রক কার হাতে।তাছাড়া বিক্রেতা সংকটে পড়ে টানা হল্টেড অবস্থা অব্যাহত রয়েছে।

গত ১৪ কার্যদিবসে কোম্পানির শেয়ারদর বেড়েছে প্রায় ৯০ শতাংশ। এছাড়াও গত এক বছরের মধ্যে কোম্পানিটির শেয়ারদর সবোর্চ্চ দরে অবস্থান করছে ইউনাইটেড ইন্সুরেন্স। ইতিমধ্যে কোম্পানির শেয়ারদর বৃদ্ধির কারণ বিষয়ে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) শোকজ করেছে। তারপরও থামছে না কোম্পানির শেয়ারদর।

ডিএসইর ওয়েবসাইড তথ্যানুযায়ী, গত মঙ্গলবার ৮ জানুয়ারী কোম্পানির শেয়ারদর বৃদ্ধি নিয়ে কোন প্রকার মুল্য সংবেদনশীল তথ্য আছে কিনা তা জানতে কোম্পানিকে শোকজ করে ডিএসই। কিন্তু শেয়ারদর বাড়ার পেছনে কোন প্রকার মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই বলে জানায় কোম্পানিটি। বাজার বিশ্লষণে দেখা যায়, গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর থেকে টানা বাড়ছে ইউনাইটেড ইন্সুরেন্সের শেয়ারদর।

রুপালী লাইফ ইন্সুরেন্স: গত তিন মাসের মাথায় রুপালী লাইফ ইন্সুরেন্সের শেয়ারের দর দ্বিগুন বেশি হয়েছে। গত ১৮ অক্টোবর শেয়ারের দর ছিল ৪১ টাকা, ১০ জানুয়ারী এ শেয়ারের দর ১০০ টাকা। বিনিয়োগকারীদের প্রশ্ন বীমা খাতের রুপালী লাইফ ইন্সুরেন্সে এমন কি ঘটনা ঘটলো যে শেয়ারের দর ˜িগুন হবে। এ শেয়ারের কারসাজিতে কোম্পানির পরিচালকরা জড়িত। শীর্ষ এক ব্রোকারেজ হাউজ থেকে এ শেয়ারের ইনসাইডার ট্রেডিং’র অভিযোগ রয়েছে।

মেঘনা লাইফ ইন্সুরেন্স নিয়ে কারসাজি: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মেঘনা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দর প্রায় ৮৫ শতাংশ বেড়েছে। গত ১৪ নভেম্বর কোম্পানিটির শেয়ার দর ছিল ৫২.৯০ টাকায়। টানা দর বেড়ে ১০ জানুয়ারী কোম্পানিটির শেয়ার দর পৌঁছায় ৮৪. ৪০ টাকায়।

অর্থাৎ দুই মাসের ব্যবধানে কোম্পানির শেয়ারের দর বেড়েছে প্রায় ৮৫ শতাংশ। সম্প্রতি এর দর বাড়ার কারণ জানাতে কোম্পানিটিকে নোটিশ পাঠায় ডিএসই। কিন্তু নোটিশের জবাবে ১২ ডিসেম্বর কোম্পানিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এজন্য তাদের কাছে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই।

প্রাইম ইসলামী লাইফ: প্রাইম ইসলামী লাইফের শেয়ার দর বেড়েছে ২০ দশমিক ১৮ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির মোট লেনদেন হয়েছে ১৮ কোটি টাকার।

বাজার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এমনিতেই বেশ দুর্বল দেশের পুঁজিবাজার। তারপরেও নিয়মিত চলছে নানা ধরনের কারসাজি। ফলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনেক উদ্যোগের পরেও ভালো অবস্থায় ফিরতে পারছে না বাজার। তছাড়া বীমা খাতের শেযারগুলোর অস্বাভাবিক দর বাড়ছে।


-

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here