সিকিউরিটিজ হাউজগুলোতে বিনিয়োগকারী শূন্যে নিষ্প্রাণ পুঁজিবাজার

   August 21, 2019

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: জাতীয় সংসদে নতুন অর্থবছরের বাজেট ও বাংলাদেশে ব্যাংকের মুদ্রানীতি ঘোষণাসহ একের পর এক ইস্যুতে ভয়াবহ আস্থা সংকটে পড়েছে পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীরা। ফলে নতুন বিনিয়োগকারী বাজারে আসার পরিবর্তে গত মাসে প্রায় ৩ লাখ বিনিয়োগকারী বাজার ছেড়েছে। আর তাতে বিনিয়োগকারী শূন্য হয়ে পড়েছে দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের ব্রোকারেজ হাউজগুলো।

আজ মতিঝিলের ব্রোকারেজ হাউজগুলোতে গিয়ে দেখো গেছে, অধিকাংশ হাউজগুলোতে বিনিয়োগাকারী শূন্য। হাতেগোনা হাউজে ট্রেডারের সঙ্গে দু-চারজন বিনিয়োগকারী ব্রোকারেজ হাউজগুলোর কম্পিউটারে স্ক্রিনের সামনে বসে রয়েছেন। তার মধ্যে দু-একজন শেয়ার কেনা-বেচা করছেন। বেশির ভাগ বিনিয়োগকারীই হতাশা প্রকাশ করছেন। বাজার ভালো হবে কি না জানতে চাচ্ছেন।

ডিএসই এনেক্স ভবনের ব্রাক ইপিএলের বিনিয়োগকারী রিপন সাহা বলেন, পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করে মাঠে মারা। তিনি বলেন, বাজার এতো খারাপ হবে ভাবতেও পারিনি। বাজার ভালো হওয়ার নতুন কোনো লক্ষণও দেখছি না। এখন শেয়ারের দাম কম বলে গত ৬ মাসে ৭ লাখ টাকা নতুন করে বিনিয়োগ করেছি। কিন্তু সেই শেয়ারগুলোর দাম কমে এখন ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকায় ঠেকেছে। ১৫ বছর বিনিয়োগের সময়ে সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছি।

নাম না প্রকাশের শর্তে লঙ্কা বাংলা সিকিউরিটিজের বিনিয়োগকারী বলেন, এটা কি কোনো বাজার হলো। ভালো কোম্পানি দেখে বিনিয়োগ করলেও লস হয়। আসলে বাজারটা গোটা কয়েক সিন্ডিকেটের দখলে। সরকারের উচিত বাজারটাকে বাঁচানো। কারণ পুঁজিবাজার ভালো না থাকলে দেশের অর্থনীতিও ভালো থাকবে না।

ডিএসইর একজন পরিচালক বলেন, বিনিয়োগকারী নেই, লেনদেনেও নেই। সুতরাং আমাদের ব্যবসাও নেই। বেশিরভাগ ব্রোকারেজ হাউজগুলো শূন্য। বাটি চালান দিয়েও বিনিয়োগাকরী খুঁজে পাওয়া যায় না। এভাবে কি ব্যবসা টিকে রাখা সম্ভব? উল্টো প্রশ্ন করেন তিনি।

তিনি বলেন, ডিএসইর খরচ মেটাতে প্রতিদিন ৫০০ কোটি টাকা লেনদেন হওয়া প্রয়োজন। কিন্তু গত ৭ মাস ধসে ডিএসইর গড় লেনদেন হচ্ছে ৩-৪শ কোটি টাকা। ফলে মুনাফা তো দূরের কথা ডিএসইর ব্যবস্থাপনা ব্যয় মেটাতে রিজার্ভ ভেঙে খেতে হবে ডিএসইকে। আর মুনাফায় আসতে হলে প্রতিদিন এক হাজার কোটি টাকা লেনদেন হতে হবে।

উল্লেখ্য, পুঁজিবাজার ভাল হওয়ার প্রত্যাশায় বছর শুরু হলেও মাত্র ২৭ দিন পর পুঁজিবাজারে শুরু হয় দরপতন। বাংলাদেশের ব্যাংকের মুদ্রানীতি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে ২৮ জানুয়ারি থেকে শুরু হয় দরপতন। এরপর অনৈতিক প্রাইভেট প্লেসমেন্ট, উদ্যোক্তা-পরিচালকের শেয়ার বিক্রিসহ নানা ইস্যু যোগ হয়। ফলে পুঁজিবাজারে দরপতন লেগেই আছে। আর তাতে অতিষ্ঠ হয়ে বিনিয়োগকারীরা ব্রোকারেজ হাউজ ছেড়েছেন।

রাজনীতি থেকে আপাতত খালেদা জিয়ার বিদায়

Admin  June 4, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: রাজনীতিতে আপাতত সক্রিয় হচ্ছেন না বেগম খালেদা জিয়া। পুরোপুরি সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত সরাসরি দল পরিচালনার দায়িত্বও...

জুন থেকেই শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘোষণা: ড. রুবানা হক

Admin  June 4, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: মহামারী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বিশ্বে ভোক্তার চাহিদা কমে যাচ্ছে। দেশের পোশাক কারখানার কাজও ৫৫ শতাংশ কমেছে। এমন...

পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের উত্তম সময়, দীর্ঘমেয়াদে বিনিয়োগে লোকসান নেই

Admin  June 4, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক রকিবুর রহমান বলেন, লেনদেন নিয়ে অনেকে হতাশ হতে পারেন। কিন্তু আমি বলব...

ফ্লোর প্রাইসে আটকে গেছে পুঁজিবাজার

Admin  June 4, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: করোনাভাইরাসের কারণে বড় ধরনের বিপর্যয় এড়াতে গত ১৯ মার্চ তালিকাভুক্ত সিকিউরিটিজে ফ্লোর প্রাইস বেঁধে দেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা...

পুঁজিবাজারের প্রতি আগ্রহ নেই, ১৩ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন

Admin  June 4, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: করোনাভাইরাসের কারণে টানা ৬৬ দিন বন্ধ থাকার পর দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন চালু হলেও চলছে লেনদেন খরা। বৃহস্পতিবার...

করোনা থেকে রক্ষায় প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

Admin  June 4, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) থেকে মানুষের জীবন বাঁচাতে এবং অর্থনীতি সচল রাখতে সরকারের নেওয়া উদ্যোগের কথা তুলে ধরে...

মাদারীপুরে করোনা নেগেটিভ থাকা ব্যক্তি চাইলেন ‘পজিটিভ’ রেজাল্ট

Admin  June 3, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, মাদারীপুর: মহামারি করোনা ভাইরাস আতঙ্কে সারা বিশ্ব। এ ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে দেশে দেশে চলছে লকডাউন। মানুষ...

ঘূর্ণিঝড় ‘নিসর্গ’র তাণ্ডব শুরু

Admin  June 3, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: ঘূর্ণিঝড় নিসর্গের তাণ্ডব শুরু হয়ে গেছে মুম্বাইসহ গোটা মহারাষ্ট্রে। আজ ১টার আগেই ব্যাপক বাতাসের দাপটে উপড়ে গেছে...

করোনায় মৃতকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা যাবে

Admin  June 3, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারীর মৃতদেহের সৎকার যেকোনো জায়গায় করা যাবে। মুসলিম ধর্মাবলম্বীরা গোরস্থানে কিংবা পারিবারিক কবরস্থানে মৃতদেহ দাফন...