মুক্তিযোদ্ধাদের নাম রাজাকারের তালিকায় রহস্যজনক : প্রধানমন্ত্রী

   December 18, 2019

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা : রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধাদের নাম থাকা দুঃখজনক উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় তালিকা গোলমাল করে ফেলেছে, তবে কিভাবে এমন ভুল হলো তা রহস্যজনক। বিষয়টিকে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ জানান তিনি।

রাজাকারের তালিকায় কোনওভাবেই মুক্তিযোদ্ধাদের নাম আসবে না বলেও সাফ জানিয়ে দেন সরকার প্রধান। বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় গণভবনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জিয়া কিংবা এরশাদ ব্যবহার না করলে পাকিস্তানের করা তালিকা নিয়ে গোলমাল হতো না বলেও এ সময় মন্তব্য করেন তিনি।

রাজাকারদের তালিকায় ভুল-ভ্রান্তি প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা আরও বলেছেন, এটি খুব কষ্টের বিষয়। যার পরিবার সদস্যরা শহীদ হয়েছে, যুদ্ধ করেছেন। তাদের যদি রাজাকার শব্দটি শুনতে হয়। তাহলে খারাপ লাগারই কথা। আমি বলব যারা দুঃখ পেয়েছেন তারা শান্ত হোন। যারা মুক্তিযোদ্ধা তারা কোনওদিনও রাজাকারের তালিকায় থাকতে পারে না। এটি হতে পারে না। কোনও মুক্তিযোদ্ধাকে রাজাকারের তালিকায় রাখা যাবে না, এটা অসম্ভব। তিনি বলেন, সরকারের প্রধান হিসেবে এ ঘটনায় আমারও দায় আছে, ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।

শেখ হাসিনা বলেন, তালিকাটি সময় নিয়ে প্রকাশ করা দরকার ছিল। আসলে আমিও ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলাম। সবদিক সময় মতো খেয়াল রাখতে পারিনি। আমি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীকে বলেছিলাম, তালিকাগুলো নিয়ে ভালোভাবে যাচাই-বাছাই করতে হবে। এত তাড়াতাড়ি এটি প্রকাশ করার কথা না। তাও বিজয় দিবসের আগে। এত সুন্দর বিজয় দিবস উদযাপন করলাম কিন্তু শহীদ পরিবার, মুক্তিযোদ্ধা পরিবার এতে কষ্ট পেয়েছে।

রাজকারের তালিকা সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, রাজাকারদের তালিকা করতে গিয়ে, স্বাধীনতার পর যাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছিল তাদের তালিকাও ঢুকে পড়েছে। ১৯৭১ সালে যারা মুক্তিযুদ্ধে গিয়েছিল তাদের অনেককেই পাকিস্তান দুর্বৃত্ত-সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত করে মামলা দিয়েছিল। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লীগের নেতাদের তালিকা ধরে ধরে কষ্ট দিয়েছে। এরশাদের সময়ও এটি ব্যবহার করা হয়েছে। কিশোরগঞ্জে ১ নম্বর সন্ত্রাসীর তালিকায় নাম ছিল জিল্লুর রহমানের। আমরা ক্ষমতায় এসে এটি অমিট করতে বলেছিলাম।

শেখ হাসিনা বলেন, তালিকা করতে গিয়ে এখানে ভুল হয়েছে। সব মিলিয়ে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় একটা গোলমাল করে ফেলেছে। যারা মুক্তিযোদ্ধা এ রকম এক হাজার জনের মতো নাম দেয়া হয়েছে। সেটি কীভাবে ওই তালিকায় চলে গেল এটি একটি রহস্য। রাজাকারদের তালিকা তার তো গেজেট করা আছে। আল বদর, আল শামস এদের গেজেট করা আছে। আমরা যখন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল করলাম ওই গেজেট থেকে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। কাজেই যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে তা কোনওমতেই রাজাকারের তালিকা নয়। যাদের ওই সময়ে জন্ম হয়নি এমন অনেকেরই নামই তালিকায় ঢুকে গেছে।

সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও বলেন, ভালো কাজ করলে সবার সহযোগিতা পাওয়া যায়। সবার সহযোগিতায় উন্নয়নের চাকা ধরে রাখা সম্ভব হয়েছে। যার ফলাফল জনগণ পাচ্ছে। আমরা যে উন্নয়ন করেছিলাম ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে নষ্ট করে দিয়েছিল। ২০০৯ সালে আমরা ক্ষমতায় এসে আবার উন্নয়নগুলো নতুন করে শুরু করলাম। কাজেই বাংলাদেশের যে উন্নয়ন শুরু হয়েছে তার অগ্রযাত্রা কেউ থামিয়ে রাখতে পারবে না। সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে বাংলাদেশ অভীষ্ট লক্ষ্যে এগিয়ে যাবে।

মহান বিজয় দিবসের একদিন আগে প্রথমবারের মত মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতা করা রাজাকারের তালিকা প্রকাশ করে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। প্রকাশের সময় এ তালিকা যাচাই বাছাই শেষে প্রণয়ন করা হয়েছে দাবি করলেও, বস্তুত এ তালিকা ভুলে ভরা। রাজাকারের তালিকায় নাম আসতে দেখে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখায় মুক্তিযোদ্ধারা ও তাদের পরিবার।

দলের কাউন্সিলকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে ওঠে এ তালিকা। প্রধানমন্ত্রী বলেন, একজন মুক্তিযোদ্ধার নাম রাজাকারের তালিকায় আসা অসম্ভব। খুবই খারাপ কাজ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় থেকে হঠাৎ একটা তালিকা বের করা হল। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন আমাদের আওয়ামী লীগ বা মুক্তিযুদ্ধে যারা গিয়েছিলো তাদের সকলের একটা তালিকা করে তাদের সন্ত্রাসী, দুর্বৃত্ত হিসেবে চিহ্নিত করে পাকিস্তান সরকার সেই সময় অনেকের বিরুদ্ধে মামলা দেয়। যেটা পরবর্তীতে জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে ওই তালিকা ধরে ধরে আওয়ামী লীগের নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বা শাস্তি দিয়েছে। আবার এরশাদের সময়ও সেটা ব্যবহার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় থেকে কোলাবরেটর হিসেবে যাদের বিরুদ্ধে মামলা তাদেরটা নিতে গিয়ে সেখানে সব মিলিয়ে একটা গোলমাল করে ফেলেছে। সেখানে অনেকের নাম চলে এসেছে যারা মুক্তিযোদ্ধা।

এ তালিকাকে রহস্যজনক আখ্যা দিয়ে জড়িতদের শাস্তি দেয়ার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী বলেন, কীভাবে এটা ওয়েবসাইটে চলে গেলো সেটা রহস্য বটে। আসলে রাজাকারদের যে তালিকা তার কিন্তু আলাদা গেজেট করা আছে।

তিনি বলেন, আমি একটা কথা স্পষ্ট করে বলে দিতে চাই, কোনও মুক্তিযোদ্ধাকে রাজাকার খেতাব দেয়া হবে না, হতে পারে না। এটা অসম্ভব। অন্তত আমার সময়ে না। কোনওমতেই এটা রাজাকারের তালিকা না।

তিনি বলেন, এটা চলে আসাতে খুব স্বাভাবিকভাবে একটা মানুষের কষ্ট লাগবে। যে পরিবারের মানুষ শহীদ হলো, যারা মুক্তিযুদ্ধ করলো তাদের যদি রাজাকার বলা হয় তাহলে এর থেকে আর বেশি দুঃখের কিছু থাকে না। যারা এই দুঃখ পেয়েছেন তাদের আমি বলবো, তারা যেন শান্ত হন এবং ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। সরকারপ্রধান হিসেবে আমারও আরেকটু শক্ত হয়ে বোধহয় বলা উচিত ছিলো। আমিও বলেছিলাম, এটা দিয়েন না। কিন্তু উনি যে কেনো দিয়ে দিলেন জানি না। এটা দেয়ার কথা ছিলো না। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়ই দেশ চলবে। যারা এ তালিকা প্রকাশের সঙ্গে জড়িত তাদের শাস্তি দেয়া হবে।

উন্নয়নে ভর করে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে সরকার: আইআরআই

Admin  January 15, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: জাতির জনকের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের ক্ষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলছেন, সমৃদ্ধ আগামীর পথে দেশকে নেওয়াই তার সরকারের লক্ষ্য।...

ভিসিদের সততা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার পরিচয় দিতে হবে: রাষ্ট্রপতি

Admin  January 11, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেছেন, উপাচার্যরা হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী। দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে আপনাদেরকে সততা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার পরিচয়...

জীবনে অনেক পরীক্ষায় ফেল করেছি, নকল করিনি: রাষ্ট্রপতি

Admin  January 11, 2020

জয়নাল আবেদিন ও আবু সাঈদ চৌধূরী, দেশ প্রতিক্ষণ, জবি: রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ জানিয়েছেন, তিনি জীবনে অনেক পরীক্ষায় ফেল করেছেন, তবে...

অল্পতেই সন্তষ্ট খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ: প্রধানমন্ত্রী

Admin  January 7, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা হিসেবে মানুষের মুখে হাসি ফোটানো একমাত্র লক্ষ্য বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ...

জাপার একজন ছাড়া সব মেয়র প্রার্থী বৈধ

Admin  January 2, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন-ডিএনসিসির জাতীয় পার্টির জি এম কামরুল ইসলাম ছাড়া সব মেয়র প্রার্থীকে বৈধ ঘোষণা করেছে...

বিশ্বের সেরা অর্থমন্ত্রী হলেন মুস্তফা কামাল

Admin  January 2, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: যুক্তরাজ্যভিত্তিক বিজনেস পত্রিকা দ্য ব্যাংকার বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালকে বিশ্বের সেরা অর্থমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত...

চট্টগ্রামে চালু হচ্ছে বিশুদ্ধ পানির এটিএম বুথ

Admin  December 30, 2019

দেশ প্রতিক্ষণ, চট্টগ্রাম: প্রথমবারের দেশে চালু হতে বিশুদ্ধ পানির এটিএম বুথ। কম দামে ও সহজে ওয়াসার পানি পেতে এমন আধুনিক...

আ’লীগ সরকারের এক বছরে যত সাফল্য

Admin  December 30, 2019

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: সদ্য সমাপ্ত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে মানুষের মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৭৫১ ডলার থেকে বেড়ে ১ হাজার ৯০৯ ডলারে...

এশিয়ান টাউনস্কেপ জুরিস অ্যাওয়ার্ড’ গ্রহণ করলেন প্রধানমন্ত্রী

Admin  December 30, 2019

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা : গৃহায়ণ এবং গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এবং উক্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দোকার...