রপ্তানি খাতের জন্য আসছে একগুচ্ছ প্রণোদনা

   June 24, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারী ছড়িয়ে পড়ায় দেশের রপ্তানি খাতে যে বিপর্যয় তৈরি হয়েছে, তা থেকে রক্ষায় একগুচ্ছ প্রণোদনার ঘোষণা আসতে পারে। সম্প্রসারণ করা হতে পারে নগদ সহায়তা বা ক্যাশ ইনসেনটিভ-এর পণ্যের সংখ্যা। এমন কি কোনো কোনো পণ্যে নগদ সহায়তার হার বাড়ানোরও সুপারিশ করা হতে পারে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্রগুলো জানায়, করোনা সংকটে দেশের রপ্তানি খাতে যে মারাত্মক সংকট সৃষ্টি হয়েছে, সেই বাস্তবতা মেনে নিয়েই এখন কীভাবে দেশের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের অন্যতম এই খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিল্পোদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীদের সহায়তা করা যায় সেদিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দিন জানান, কভিড-১৯ দেশের রপ্তানি খাতে বড় চ্যালেঞ্জ তৈরি করেছে। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা ইপিবি ও ট্যারিফ কমিশনের কাছে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব চেয়েছি। ওই দুটি প্রতিষ্ঠানের প্রস্তাব পাওয়ার পর রপ্তানি খাতের প্রণোদনা ও নগদ সহায়তার বিষয়ে একটি সুপারিশ অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, রপ্তানি খাতের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এরই মধ্যে ইপিবি একটি প্রাথমিক প্রতিবেদন পাঠিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে। ওই প্রতিবেদনে যেসব বিষয়ে গুরুত্ব দিতে বলা হয়েছে, সেগুলো হচ্ছে : (১) যেসব খাতের রপ্তানি আদেশ বাতিল বা স্থগিত হয়েছে, সেসব আদেশ পুনর্বহাল করতে বিদেশি ক্রেতা ও ব্র্যান্ডগুলোর সঙ্গে ভার্চুয়াল মিটিং করা, (২) নতুন উদ্যোক্তাদের রপ্তানি আদেশ বাস্তবায়নে সহায়তার জন্য ইপিএফ (এক্সপোর্ট প্রমোশন ফান্ড) বাড়ানো, (৩) বায়িং হাউসগুলোকে নীতি সহায়তা দেওয়া, (৪) জীবাণুমুক্ত পরিবেশে বাংলাদেশের পণ্য তৈরি হচ্ছে এ বিষয়ে সার্টিফিকেট ব্যবস্থার প্রবর্তন এবং বিশ্ববাজারে তার প্রচারণা তুলে ধরা,

(৫) চিহ্নিত সম্ভাবনাময় রপ্তানি খাতে বিনিয়োগ আকর্ষণে পদক্ষেপ গ্রহণ, (৬) করোনা পরিস্থিতিতে বিপণন কৌশল পরিবর্তন করে বাংলাদেশি পণ্যের প্রচারণা চালাতে ভার্চুয়াল বাণিজ্য মেলার আয়োজন করা, (৭) তৈরি পোশাকের বাইরে অপ্রচলিত খাতের রপ্তানিকারকদের তালিকা প্রণয়ন ও ক্ষতিগ্রস্ত রপ্তানিকারকদের সহায়তার জন্য চিহ্নিতকরণ, (৮) কভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের কারণে সরকারের প্রদত্ত প্রণোদনা সুবিধা যাতে সব রপ্তানিকারদের মধ্যে নিশ্চিত করা যায় সে বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়, শিল্প মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোকে চিঠি লেখা এবং (৯) নগদ সহায়তার হার ও খাতভিত্তিক পণ্য বাড়ানো।

সংশ্লিষ্টরা জানান, দেশের রপ্তানি খাতকে উৎসাহিত করতে মোট ৩৭টি পণ্য ও খাত বিভিন্ন হারে নগদ সহায়তা পাচ্ছে। তবে করোনা সংকটে এই খাতগুলো পুনর্বিন্যাস এবং কিছু কিছু খাতে সহায়তার পরিমাণ বাড়ানোর প্রয়োজনীয়তা তৈরি হয়েছে। এ ছাড়া করোনার কারণে নতুন ধরনের কিছু পণ্য, নতুন বাজারে রপ্তানির সম্ভাবনাও সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে বিপর্যয়ের মধ্যেও করোনা প্রতিরোধী মেডিকেল ইকুইপমেন্ট যেমন- মাস্ক, হ্যান্ডগ্লাভস, পিপিই, স্যানিটাইজারসহ বিভিন্ন ধরনের পণ্য রপ্তানি বেড়েছে। এসব পণ্যে নগদ সহায়তার জন্য সুপারিশ করা হতে পারে। এ ছাড়া করোনার কারণে তৈরি পোশাকের বাইরে যেসব অপ্রচলিত খাত সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, সেসব পণ্য ও খাতকে নগদ সহায়তার জন্য অন্তর্ভুক্তিকরণের পাশাপাশি সহায়তার হার বাড়ানোর বিষয়টিও বিবেচনা করা হচ্ছে।

এরই মধ্যে মেডিকেল ইকুইপমেন্ট এবং অপ্রচলিত পণ্য খাত হিসেবে কাঁকড়া ও কুঁচে মাছকে রপ্তানি প্রণোদনার জন্য সুপারিশ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, ক্রাস্ট ও ফিনিশড লেদার, দেশে উৎপাদিত কাগজ ও কাগজজাতীয় দ্রব্য, হালকা প্রকৌশল পণ্যে ক্যাশ ইনসেনটিভ বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে এই খাতের সংশ্লিষ্টরা। ওই সভায় কাগজ শিল্পের নগদ সহায়তা ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৩০ শতাংশে উন্নীত করার সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ পেপার মিলস অ্যাসোসিয়েশন (বিপিএমএ)। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, করোনার কারণে দেশের সম্ভাবনাময় এই খাতটি ভয়াবহ ক্ষতির মুখে পড়েছে।

গত এপ্রিল পর্যন্ত যে শিল্পের রপ্তানি আয় ছিল লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় বেশি, মাত্র এক মাসের ব্যবধানে গত মে মাসে সেই আয় প্রায় (-) ১১ শতাংশ ঋণাত্মক হয়ে গেছে। এর ফলে এই শিল্পের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত ৬০ লাখ মানুষের জীবিকা হুমকিতে পড়েছে। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ওবায়দুল আজম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, কভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশের রপ্তানি খাতগুলোকে কী ধরনের সহায়তা দেওয়া দরকার আমরা উদ্যোক্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানতে চেষ্টা করছি। বিপর্যয় কাটাতে যেমন আর্থিক সহায়তার দরকার, তেমনি নীতিগত সহায়তারও প্রয়োজন রয়েছে। প্রণোদনার ক্ষেত্রে আমরা সবগুলো বিষয় বিবেচনায় রেখেছি। সুত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

বিদেশি বিনিয়োগ টানতে ব্যাংকিং জটিলতা কমানোর নির্দেশ

Admin  June 25, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: বৈশ্বিক করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারির একদিকে যেমন জীবন-জীবিকার ঝুঁকি রয়েছে, অন্যদিকে উঁকি দিচ্ছে সম্ভাবনা। করোনার প্রভাবে বিশ্বব্যাপী অর্থনীতিতে...

১১ বছরে দেশে কোটিপতি বেড়েছে তিনগুণ

Admin  June 25, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: দেশে ধনী ব্যক্তিদের সম্পদ দ্রুত হারে বাড়ছে। ব্যাংক হিসাবের তথ্যানুযায়ী দেশে ১ কোটি বা তারচেয়ে বেশি টাকার আমানত...

করোনাকালে টেলিমেডিসিন

Admin  June 24, 2020

ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল: কোভিড সংক্রমণের এ অদ্ভুত সময়টায় আমাদের দিনগুলো কেমন যেন উল্টেপাল্টে গেছে। বদলে গেছে দিন আর...

স্মরণে ফজলুল হক মিয়া চাচা

Admin  June 24, 2020

ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল: আমি যখন ১৯৮৮ সালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে পড়তে যাই, তখন আমার পরিবার একধরনের সংকটের মধ্য...

ঢাবি ছাত্রীকে চাকরি করতে চাওয়ায় শ্বশুরবাড়িতে হত্যা !

Admin  June 24, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, নাটোর: মেয়ে সুমাইয়া বেগম অসুস্থ, মুঠোফোনে বেয়াই এমন সংবাদ দিলে যশোর থেকে নাটোর আধুনিক হাসপাতালে ছুটে আসেন মা...

করোনা সংকটের মধ্যেও বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভে নতুন রেকর্ড

Admin  June 24, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: করোনা ভাইরাস সংকটের মধ্যেও বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার সঞ্চয়ন (রিজার্ভ) প্রথমবারের মতো ৩৫ বিলিয়ন ডলারের (তিন হাজার...

পোশাক খাতে ক্রয়াদেশ আসছে, সচল হচ্ছে কারখানা

Admin  June 24, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা: মরণঘাতি করোনাভাইরাসের কারণে চীন থেকে শুরু হয়ে গত জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত বেশির ভাগ পশ্চিমা দেশ অবরুদ্ধ...

পুঁজিবাজারকে প্রভাবিত করার কোনো সিদ্ধান্ত নেই এবারের বাজেটে

Admin  June 24, 2020

শফিকুল ইসলাম: বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট বিরাট অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তার প্রেক্ষাপটে এবারের বাজেট বিশেষভাবে গুরুত্ববহ। একদিকে দেশের স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে সচল রেখে...

পাড় কেটেই পুকুর কাটার বিল নেওয়া হয়: প্রধানমন্ত্রী

Admin  June 21, 2020

দেশ প্রতিক্ষণ, ঢাকা:  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের কাছে অভিযোগ আছে পাড় কেটেই পুকুর কাটার বিল নেওয়া হয়। পুকুরের চারপাশ...