হোসাইন আলী বরগুনা আমতলী, দেশ প্রতিক্ষণ: বঙ্গোপসাগরে ডাকাত দলের হামলায় বরগুনার তালতলীর ৫ জেলে আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত অবস্থায় জেলে হাফেজ হাওলাদার, খোকন হাওলাদার ও মোরসালিনকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার ফকিরহাট এলাকা থেকে পশ্চিম-দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরের বলেশ্বর নদীর মোহনায় এ ঘটনা ঘটে।



আহত জেলেরা জানায়, বঙ্গোপসাগরের বলেশ্বর মোহনায় তালতলী উপজেলার হাফেজ হাওলাদার ও ইব্রাহিম মিয়া দুটি ট্রলার নিয়ে মাছ শিকার করতে যান। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই ট্রলার দুটিতে একদল ডাকাত হামলা চালায়। হামলায় হাফেজ হাওলাদারসহ ৫ জেলে আহত হন। হামলার পর ডাকাত দল ট্রলারে থাকা তিন লাখ টাকার জাল ও মাছ নিয়ে গেছে।

আহত জেলে হাফেজ হাওলাদার সাংবাদিকদের জানান, দুটি ট্রলার নিয়ে ২০ থেকে ২২ জনের ডাকাত দল ট্রলারে হামলা চালিয়ে তিন লাখ টাকার জাল ও মাছ নিয়ে গেছে। ডাকাত দলের হামলায় ৫ জেলে আহত এবং এক জেলে সাগরে লাফ দিয়ে এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

ট্রলার মালিক মো. ইব্রাহিম হাওলাদার বলেন, ডাকাতরা ট্রলারে উঠে আমাদের ইঞ্জিনের কক্ষে আটকে আলো বন্ধ করে দেয়। শনিবার (১ জানুয়ারি) সকালে পাথরঘাটার হরিণবাড়িয়া খালে আমাদের রেখে ডাকাতদলের সদস্যরা চলে যায়।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সুমন বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেন, আহত তিন জেলেকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তাদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

তালতলীর নিদ্রা-সোকিনা কোস্টগার্ডের কন্টিনজেন্ট কমান্ডার সাজু মন্ডল বলেন, এ ঘটনার পরপর সাগরে টহল জোরদার করা হয়েছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যেই ডাকাত দলের সদস্যদের গ্রেপ্তারে সফলতা আসবে।’